তুলসি পাতার উপকারিতা

তুলসী পাতার ঔষধি গুন সম্পর্কে আমরা কম বেশি সবাই জানি।  এই পাতা সর্দি-কাশিতে বেশ উপকার আসে। এ পাতার মধ্যে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যেগুলো বিভিন্ন ধরনের রোগের উপশম হিসেবে কাজ করে। ক্যান্সার ডায়াবেটিস হারবে তা গলা ব্যাথা সর্দি কাশিসহ বিভিন্ন রোগের উপকার করে থাকে এই পাতা। নিম্নে এই পাতা সম্পর্কে কিছু আলোচনা করা হলো:

সর্দি কাশিতে তুলসী পাতার বিকল্প নেই। এ পাতা বিভিন্ন রোগের উপসং হিসেবে কাজ করে। এ পাতার রস আদা, চিনি, মধুর সাথে মিশিয়ে খাওয়ালে সর্দি কাশি থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। ছোট বাচ্চাদের সর্দি কাশি হলে তুলসী পাতায় এটি প্রাকৃতিক ওষুধ হিসেবে কাজ করে। তুলসী পাতার সাথে আদা, লেবুর রস, মধু মিশিয়ে খেলে সর্দি-কাশি সহজেই দূর হয়ে যায়। বুকের মধ্যে কফ বসে গেলে তুলসী পাতা খেলে সহজে তা দূর হয়। 

যাদের গলার ব্যথা হয় সেই ব্যাথা দূর করার জন্য তুলসী পাতা বেশ ভালো কাজ করে। তুলসী পাতা পানির মধ্যে ফুটিয়ে তাতে লবণ দিয়ে গড়গড় করে গুলি করলে গলা ব্যাথা সহজে দূর হয়ে যায়।  তুলসী পাতা ফুটিয়ে চায়ের সাথে মিশিয়ে খাওয়া যায়। তুলসী পাতার রস দিয়ে চা বানিয়ে খেলে গলার ব্যাথা।  যাদের গলার ব্যথা বা অন্যান্য ব্যথা পেতে পারেন।

ক্যান্সারের মতো মরণঘাত ব্যধিতে তুলসী পাতা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তুলসী পাতার মধ্যে ঔষধি গুণ থাকার কারণে এটি ক্যান্সারের প্রতিরোধক হিসেবে কাজ করে। দুর্বল ও মরে যাওয়ার কোষগুলোকে তুলসী পাতা  আবার সতেজ করে। অগ্নাশয়ের টিউমার তুলসী পাতার মাধ্যমে সহজে নিরাময় হয়ে যায়।  তাই ক্যান্সার সহ বিভিন্ন ধরনের প্রাকৃতিক ওষুধ হিসেবে তুলসী পাতা খাওয়া যেতে পারে।

যারা অতিরিক্ত ওজনের ভুগছেন তারা তাদের ওজন কমানোর জন্য তুলসী পাতা খেতে পারেন তুলসী পাতা ফ্যাট চর্বি শুভ ক্ষতিকর বিষাক্ত পদার্থ সহজে বের করে দেয়  এটি শুরু থেকে বিষাক্ত পদার্থ বের করে দেয়। ওজনের কমানোর জন্য তুলসী পাতা একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করি। এই পাতা আমাদের অতিরিক্ত ছবিগুলো কেটে শুরু থেকে বের করে দেয়।  যাদের ওজন বেশি তারা ডায়েট ও ব্যায়ামের সাথে তুলসী পাতার রস খেতে পারেন। 

 তুলসী পাতা যেহেতু একটি ওষুধে গুণে পরিপূর্ণ পাতা,এ কারণেই পাতাটি মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। বিভিন্ন ধরনের চুলকানি এজমা ব্রংকাইটিস হাঁপানি সহ বিভিন্ন রোগের প্রতিরোধক হিসেবে কাজ করে। তুলসী পাতার সাথে এলাচ মিশিয়ে পান করলে এটি মানুষের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। শরীরের কোন স্থান কেটে গেলে সেখানে তুলসী পাতার রস লাগলে সহজে সেখান থেকে রক্ত পড়া বন্ধ হয়ে যায় এবং কত স্থান দ্রুত সরে যায়। তাই আমাদের বৃদ্ধির জন্য তুলসী পাতা অবশ্যই একটি প্রাকৃতিক ওষুধ হিসেবে কাজ করে।

সজনে পাতার উপকারিতা

Views: 12

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *